বিয়ের আগে ঘনিষ্ঠতা, যা বললেন আলিয়া ভাট - বঙ্গ সমাচার বিয়ের আগে ঘনিষ্ঠতা, যা বললেন আলিয়া ভাট - বঙ্গ সমাচার

শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০৩ অপরাহ্ন

জরুরী বিজ্ঞপ্তি :
জেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আমাদের পরিবারে যুক্ত হতে আপনার সিভি পাঠিয়ে দিন bongosamacharnews@gmail.com এই ঠিকানায়। বিজ্ঞাপনের জন্য  ইমেইল করুন bongosamacharnews@gmail.com এই ঠিকানায়।

বিয়ের আগে ঘনিষ্ঠতা, যা বললেন আলিয়া ভাট

বিনোদন ডেস্ক :

আলিয়া-রণবীরের প্রেম কাহিনী সিনেমাকেও হার মানায়। ক্যাটরিনা-দীপিকার সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করে আলিয়ায় তরী ভিড়িয়েছেন রণবীর কাপুর। বি-টাউনে এই গুঞ্জণ ছিল প্লে-বয়ের এই প্রেমও টিকবে না।

তার আগে বারবার পরিকল্পনা করেও বিয়ে করতে পারছিলেন না তারা। প্রথমে সিনেমার ব্যস্ততা ও পরে করোনা মহামারি তাদের চার হাত এক হতে দেয়নি। তবে করোনার সময়টাতে দুজনের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। আলিয়ার বাড়িতে রণবীর ও আবার প্রেমিকের বাড়িতেও বলিউড সেনসেশনকে অবাধ যাতায়াত করতে দেখা গেছে।

এ বিয়ে দীর্ঘদিন পর মুখ খুলেছেন আলিয়া ভাট। তার মতে, একসঙ্গে থাকলে অনেকটা সময় দু’জনের একসঙ্গে কাটে। ফলে সঙ্গীকে বেশি ভালো করে চেনা যায়। সুন্দর সব স্মৃতি তৈরি হয়। তার কথায়, ‘একসঙ্গে থাকার সুযোগ পেলে কেন থাকবে না? এ ভাবেই দু’জনের একসঙ্গে থাকার অভ্যাস তৈরি হয়।’’

‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমায় কাজ করাকালীন রণবীরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান আলিয়া। বিয়ের পরিকল্পনা সেরে রাখলেও করোনার কারণে তা পিছিয়ে যায়। এ বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘আমরা বিয়ে করব ভেবে একসঙ্গে থাকতে শুরু করেছিলাম। কিন্তু মহামারি শুরু হলো। তাই ভাবলাম, একসঙ্গে থাকা শুরু করি। তার পর বাকি বিষয় নিয়ে ভাবা যাবে।’

চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিয়ে করেন রণবীর এবং আলিয়া। জুন মাসে অন্তঃসত্তা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনেন অভিনেত্রী। তবে সন্তানের অপেক্ষায় কাজ থেমে থাকেনি। স্বামী রণবীরের সঙ্গে সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’-এর প্রচার করছেন হবু মা।

করণ জোহর পরিচালিত ‘রকি অউর রানি কি প্রেম কহানি’তেও অভিনয় করেছেন আলিয়া। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে দেখা যাবে রণবীর সিংকে। সব ঠিক থাকলে পরের বছর ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পাবে ছবিটি।

সংবাদটি শেয়ার করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published.

পূর্বানুমতি ব্যাতিত এই সাইটের কোন লেখা, ছবি বা ভিডিও ব্যাবহার করা নিষিদ্ধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com